শিরোনাম:
ঝালকাঠি টিটিসির অধ্যক্ষের সরকারি গাড়ি ভাড়ায় চালিত মাইক্রোবাসস্ট্যান্ডে। চট্রগ্রামের আলিচিত আয়াত হত্যা দেহের দুই টুকরার খোঁজ মিলেছে সাগরপাড়ে। পূর্বাচল ৩০০ফিট রাস্তা অনাকাঙ্ক্ষিত মরন ফাঁদ রাজাপুরে বিএনপির ১০৬জন নেতাকর্মীর নামে বিস্ফোরক আইনে মামলা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর জনসভার নিরাপত্তায় থাকবে সাড়ে সাত হাজার পুলিশ বাহিনী। পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকত দোকান মালিক সমবায় সমিতি লিঃ এর ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনোত্তর শপথ গ্রহন। রূপগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় ৭ বছরের শিশু মাইমনার মৃত্যু রাজাপুরে স্কুল ছাত্রীর মরাদেহ উদ্ধার হাটহাজারীতে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৮১৯ জন ছাত্র ছাত্রী। ড. আকতার হামিদ পদক- ২০২১ পেলেন সুলতানুল আলম চৌধুরী।

শাহাদৎ হোসেনের মতবিনিময় ও ব্যাপক প্রচার প্রচারণা

আরিফুজ্জামান চাকলাদার
  • আপডেটের সময় : শনিবার, ৮ অক্টোবর, ২০২২
মতবিনিময় ও ব্যাপক প্রচার প্রচারণা

ফরিদপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনকে সামনে রেখে জনপ্রতিনিধিদের ভোটের পদপ্রার্থী চেয়ারম্যান মো. শাহাদৎ হোসেন চশমা মার্কা প্রতীক নিয়ে আলফাডাঙ্গা উপজেলাতে মতবিনিময় ও ব্যাপক প্রচার-প্রচারণা চালিয়ে যেতে দেখা গেছে।গত শুক্রবার ৭ অক্টোবর রাতে আলফাডাঙ্গা উপজেলাতে প্রতিনিধিদের সাথে কুশল বিনিময় ও উন্নয়ন, জনপ্রতিনিধিদের মূল্যায়ন,প্রতি উপজেলা কাজের শতভাগ সমবন্টন,পাঁচ বছর তাদের সুখে-দুখে পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতি দিয়ে চশমা মার্কায় ভোট দেয়ার জোর দাবি তোলেন। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েক মেম্বার বলেন,বিগত ১০ বছরে চেয়ারম্যানের কাছ থেকে আমরা কোনো মূল্যায়ন পাইনি।

আমাদের কোন খোঁজখবর নেয়নি। আজ শাহাদৎ হোসেন প্রার্থী হয়েছে বলে জেলা পরিষদের নির্বাচন নির্বাচিত প্রতিনিধিরা ও জনগণ জানতে পেরেছে। ভোটের মূল্যায়ন হয়েছে। প্রার্থীরা আমাদের নানান উন্নয়নের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছে। আমরা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে উদাত্ত আহ্বান জানাই যাতে অবাধ-সুষ্ঠু-নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়।আমাদের ভোট যোগ্য প্রার্থীকে গোপন ব্যালটের মাধ্যমে নির্বাচিত করতে চাই।শাহাদৎ হোসেন বলেন, বিগত ১০ বছর জেলা পরিষদের নির্বাচনে মূল অংশীদাররা তাদের ভোট অধিকার অর্জন করতে পারে নাই। আমি এবার নির্বাচনে আমার সেই ভোটারদের অধিকার নিশ্চিত করার জন্য ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়নের জোয়ার তৃণমূল পৌঁছানোর জন্য তাদের অনুরোধে নির্বাচন করি।

আমার ৪০ বছরের আওয়ামী রাজনীতির অর্জন থেকে সরে ১১৮২ তারা যেন তাদের অধিকার পায় এ জন্য আমার নির্বাচন। উপরে আল্লাহ যদি আমাকে নির্বাচিত করে।জেলা পরিষদের বরাদ্দ ও আয় নোটিশ বোর্ডে টানিয়ে জনগণকে জানিয়ে দেবো। পরিষদের দুর্নীতির স্বর্গরাজ্যে পরিণত করেছিল, সেটা ভাঙ্গার জন্যই আমার নির্বাচন। প্রধানমন্ত্রীর বরাদ্দ উন্নয়ন মেম্বারদের মাধ্যমে জনগনের দাঁড় গোড়া পৌছায় দিতে চাই।তার একটাই দাবী অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ ভোট যাতে হয়। তার শ্লোগান হচ্ছে, আমার ভোট আমি দিবো যাকে খুশি তাঁকে দিব।যদি ফারুক সাহেব বিজয়ী হয় তাকে ফুলের মালা গলায় দিয়ে বরন করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশ গড়ার স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করবো। তিনি আশা করেন ১৭ অক্টোবর মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সর্বোচ্চ সুষ্ঠু সুন্দর ও নিরপেক্ষ নির্বাচন দিবে।

নির্বাচন সুষ্ঠু হলে আল্লাহ রহমতে ১০০℅ বিজয়ের আশাবাদী।আমি নির্বাচিত হয়ে সকল কাজ কর্ম ও উন্নয়ন টেন্ডার পত্রিকায় মাধ্যমে ও নোটিশ বোর্ড এমন কি উপজেলা নোটিশ বোর্ডে টানিয়ে দিবো।বিভিন্ন উপজেলাতে সিডিউল বিক্রি করার পদক্ষেপ গ্রহন করবো। বিগত দিনে টেন্ডারবাজি ও কাজের ব্যাপক অনিয়ম হয়েছে।আমি কোন টেন্ডার বাজি করবো না। সমস্ত চেয়ারম্যান ও মেম্বারদের নিয়ে সকল উন্নয়ন বাস্তবায়ন করবো। ভোটারগন ও জনগনের উদ্দেশ্যে বলেন,আমার জন্য দোয়া ও সমর্থন করবেন এবং১৭ অক্টোবর আপনাদের মূল্যবান ভোটদিয়ে আমাকে বিজয়ী করবেন।

এই বিভাগের আরও খবর
কপিরাইট ©২০০০-২০২২, WsbNews24.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY ServerNeed.Com
themesbazarwsbnews25
x