শিরোনাম:
নওগাঁয় যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত ঝাউগড়ায় কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বিএনপি’র পুস্পস্তবক অর্পণ দেশে সব ধর্মের মানুষের জন্য শান্তির জনপদ করেছিলেন জাতির জনক: প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নওগাঁয় যথাযোগ্য মর্যাদায় আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারী আমি কি ভুলিতে পারি। রূপগঞ্জে জাতীয় প্রাথমিক শিক্ষা পদকপ্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান চট্টগ্রাম কারাগারে হাজতির মৃত্যু; জেল সুপার-ওসিসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা সিএমপি ইপিজেড থানা পুলিশের অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত আসামি মোঃ লোকমান আজাদ’গ্রেফতার চট্টগ্রামে এম পি মহিউদ্দিন বাচ্চুর জামিন মঞ্জুর ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলায় মাদ্রাসার সুপারের বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাৎ এ মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে

“বেনীপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ে বই উৎসব অনুষ্ঠিত”

মো নাহিদ হাসান নওগাঁ প্রতিনিধিঃ
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ১ জানুয়ারী, ২০২৩
14.8kভিজিটর

সারাদেশের ন্যায় নওগাঁ জেলার নিয়ামতপুর উপজেলার চন্দননগর ইউনিয়নের বেনীপুর আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়েও অনুষ্ঠিত হয়েছে নতুন বছরের বই উৎসব। উক্ত বই উৎসব এ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ২ নং চন্দননগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বদিউজ্জামান বদি, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলিমুদ্দিন, উক্ত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন উক্ত বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান, অভিভাবক প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, রেজাউল করিম রেজা সহ উক্ত বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক মন্ডলী,ম্যানেজিং কমিটির সদস্যবৃন্দ, অভিভাবক বিন্দু এবং কমলমতি ছাত্র-ছাত্রীরা।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব আব্দুল মান্নান। তিনি বলেন, বিনা মূল্যে বই ছড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে। বইয়ের গন্ধে ফুলের মতো ফুটে উঠছে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা। এ এক অভিনব এবং বিস্ময়কর ব্যাপার।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বদিউজ্জামান বদি বলেন, সরকারের অনেক ভালো কাজের মধ্যে বই বিতরণ কর্মসূচি একটি প্রশংসনীয় উদ্যোগ। এবারের বইয়ে আরও নতুন ও আকর্ষণীয় বিষয় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে বলে উল্লেখ করেন তিনি। তার আশা অভিভাবক ও শিক্ষকদের সহযোগিতায় এই কর্মসূচি এগিয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন উক্ত বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক কামরুজ্জামান। সূচনায় দেশের জাতীয় সংগীত বাজানো হয়।ছাত্র-শিক্ষক-অভিভাবক দাঁড়িয়ে পড়েন। তারা হৃদয়ে উপলব্ধি করেন দেশকে। মনোলোকে দেখেন দেশের মানুষকে। শীত, গ্রীষ্ম, বর্ষা ঋতুতে আবিষ্কার করেন নিজেকে।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত বীর মুক্তিযোদ্ধা আলিমুদ্দিন বলেন,
এদেরই হাত ধরে একটি সমৃদ্ধ ও জ্ঞানবান প্রজন্ম গড়ে উঠবে, এই কামনা করি। তিনি বই বিতরণে সরকারের এই কর্মসূচিকে ব্যতিক্রমধর্মী এবং প্রশংসনীয় বলে উল্লেখ করলেন। আরো উল্লেখ করলেন ১৯৭১ সালে যে বাংলা ভাষার জন্য যুদ্ধ করেছি আজ সেই বাংলা বই কমলমতি ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে নিজের হাতে তুলে দিতে পেরে নিজেকে নিয়ে গর্ব হচ্ছে। আমার মুক্তিযুদ্ধ করা সার্থক হিসেবে আখ্যায়িত করেন তিনি।

সপ্তম শ্রেণী থেকে অষ্টম শ্রেণীতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থী সজিবুর রহমান সজিব বলেন, নতুন বই পেয়েছি, নতুন বইয়ের গন্ধ অনেক সুন্দর লাগতেছে। সপ্তম শ্রেণীতে আমার রোল ছিল ১ এবং অষ্টম শ্রেণিতেও আমার রোল ১। সবকিছু বিবেচনা করে আজকের এই দিনটা আমার কাছে শ্রেষ্ঠতম হয়ে থাকবে।

অভিভাবক প্রতিনিধি রেজাউল করিম রেজা বই বণ্টনে মঞ্চে ছিলেন। তিনি বললেন, অভিভাবক ও তাদের সন্তানদের আনন্দেই আনন্দ। আরও যোগ করলেন, বললেন সময়ের ফ্রেমে বেঁধে রাখার মতো একটি দিন আজ।

এই বিভাগের আরও খবর
কপিরাইট ©২০০০-২০২২, WsbNews24.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY ServerNeed.Com
themesbazarwsbnews25
x