শিরোনাম:
হাটহাজারীতে ইউপি নির্বাচনে নৌকার ৮ জন ও স্বতন্ত্র ৫ জন বিজয়ী চাটমোহরে ইউপি নির্বাচনে আ’লীগের ৭, স্বতন্ত্র ৪ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হাতীবান্ধার সানিয়াজানে রাস্তা নির্মাণে নবতরী বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন’র আর্থিক সহায়তা প্রদান ঝালকাঠিতে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ বিক্রয়ের অভিযোগ ঝালকাঠিতে ১০০ টাকায় ১৪ তরুণ-তরুণীর পুলিশে চাকরীমো. কুতুবপুর ইউপি নির্বাচনে সেলিম রেজা বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত। সুন্দরগঞ্জে ভোটকেন্দ্রে হামলা, ব্যালট পেপার ছিনতাই সিরাজগঞ্জে ভোটের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে আহত ২ সাংবাদিক গোটা দেশের মানুষ জান মালের নিরাপত্তা সহ সুখে শান্তিতে বসবাস করতেছেন-বজলুল হক হারুন এমপি বোয়ালমারীতে মাদ্রাসার ছাত্রদের উপর হামলা, থানায় অভিযোগ

১৩ জন প্রভাষকের শিক্ষক নিবন্ধন ভুয়া, তবুও তারা বহাল তবিয়তে

মোঃ ছামিউল ইসলাম, জামালপুরপ্রতিনিধিঃ
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ২৪ অক্টোবর, ২০২১

শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার জাল সনদ নিয়ে চাকরি নেওয়ার পরেও আইনের চোখের ফাঁকিতে রয়েছে কলেজ শিক্ষক মালেকা খাতুন। বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যয়ন কর্তৃপক্ষ (এনটিআরসিএ) এর সহকারী পরিচালক (পমূপ্র-৩) তাজুল ইসলামের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও এক বৎসরেও হয়নি তার বিরুদ্ধে মামলা।


কলেজের গভর্ণিং বডির সভায় জাল সনদধারী শিক্ষক মালেকা খাতুনসহ ১৪ জন প্রভাষকের শিক্ষক নিবন্ধন সনদ না থাকা সত্ত্বেও আইনের পরিপন্থী নিয়োগ দেওয়ায় তাদেরকে চাকুরী থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তাদেরকে কাগজে কলমে অব্যাহতি দিলেও খন্ডকালীন শিক্ষক হিসেবে কলেজে কর্মরত রাখা হয়েছে এবং তাদের বেতন ভাতাও সঠিক সময়ে দেওয়া হচ্ছে।

তারা হলেন -মালেকা খাতুন, সাহিদা আলম, ফারুক হোসেন ও নাজমুন নাহার প্রভাষক,রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগ, মনীরা পারভীন ও রোকসানা ইসলাম,প্রভাষক, সমাজ কর্ম বিভাগ, ফারলিন সরকার ও মনীষা আক্তার,প্রভাষক,ইংরেজি বিভাগ,রফিকুল ইসলাম, প্রভাষক, সমাজ বিজ্ঞান বিভাগ, আব্দুল মজিদ প্রভাষক,ইতিহাস বিভাগ,সাবরিন ইসলাম,প্রভাষক,মনোবিজ্ঞান বিভাগ,সাওদা ইসলাম,প্রভাষক,ব্যবস্হাপনা বিভাগ,শারমিন সুলতানা,প্রভাষক,মার্কেটিং বিভাগ, ও জিন্নাত নূরে জান্নাত প্রভাষক,অর্থনীতি বিভাগ।

জাল সনদের দায়ে অভিযুক্ত শিক্ষক মালেকা খাতুন কাজীপুর উপজেলার মাজনাবাড়ী গ্রামের এম.ডি আব্দুল জলিল মন্ডলের কন্যা। তিনি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার জাল সনদ দিয়ে দীর্ঘ ১১ বছর ধরে জামালপুরের সরিষাবাড়ীর মাহমুদা সালাম মহিলা কলেজে রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক হিসেবে কর্মরত ।

অপরদিকে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন প্রভাষক বলেন,আমরা এনটিআরসিএ কর্তৃক নিয়োগ প্রাপ্ত হওয়া সত্ত্বেও আমাদেরকে কলেজ অংশের বেতন দেওয়া হচ্ছে না।আমাদের প্রতি অমানবিক আচরণ করা হচ্ছে।

কলেজ সূত্রে জানা গেছে, এনটিআরসিএ এর প্রভাষক (রাষ্ট্র বিজ্ঞান) এর সনদ জাল করে মালেকা খাতুন ২০১১ সালে সরিষাবাড়ী মাহমুদা সালাম মহিলা কলেজে রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগে অনার্স শাখায় প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। এরপর থেকে তার জাল সনদের বিষয়টি নিয়ে এলাকায় সমালোচনা শুরু হয়। অবশেষে কলেজ কর্তৃপক্ষের আবেদনের প্রেক্ষিতে এনটিআরসিএ কর্তৃপক্ষ মালেকা খাতুনের দাখিলকৃত নিবন্ধন সনদ যাচাই করেন। যাচাইঅন্তে এনটিআরসিএ’র সহকারী পরিচালক (পমূপ্র-৩) তাজু

এই বিভাগের আরও খবর
কপিরাইট ©২০০০-২০২০, WsbNews24.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY ServerNeed.Com
themesbazarwsbnews25
x