হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে রিপোর্টার্স ইউনিটির স্মারকলিপি পেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেটের সময় : বুধবার, ৭ এপ্রিল, ২০২১

মোঃসোহেল রানা,স্টাফ রিপোর্টারঃ সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ ও হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবিতে ঠাকুরগাঁওয়ে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির উদ্যোগে আজ বুধবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী বরাবরে এ স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। স্মারকলিপি প্রদান করেন ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি এমদাদুল ইসলাম ভূট্টো, সহঃ সাধারণ সম্পাদক মোঃ আসাদুজ্জামান আসাদ, দপ্তর সম্পাদক জয় মহন্ত অলক, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রেদওয়ানুল হক মিলন, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক সোহেল রানা সাঈদ, সদস্য এস এম মুক্তাদিরুজ্জামান রাসেলসহ অন্যরা৷ এসময় ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতৃবৃন্দ সাংবাদিকদের উপর হামলার ঘটনায় সন্ত্রাসীদের দ্রুত আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির দাবি জানান। সে সময় তারা মামলার জামিন না নিয়ে হামলাকারীরা ঘুরে বেড়ানো ও বিভিন্ন কর্মসুচিতে অংশ নেওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন। সে সময় ঠাকুরগাঁও জেলা প্রশাসক ড. কে এম কামরুজ্জামান সেলিম রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতৃবৃন্দকে সন্ত্রাসী ও হামলাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার বিষয়ে আশ্বস্ত করেন। পরে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতৃবৃন্দ এ বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীসহ বিভিন্ন দফতরে অনুলিপি প্রদান করেন। সে সময় ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, গত ১৮ই মার্চ ২০২১ ইং তারিখে ঠাকুরগাঁও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি এমদাদুল ইসলাম ভূট্টো, সাঃ সম্পাদক আবদুল লতিফ লিটু, দপ্তর সম্পাদক জয় মহন্ত অলকসহ নেতৃবৃন্দের উপর হামলা চালায় মনসুর আলীর নেতৃেত্ব একদল সন্ত্রাসী। পরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনে সংগঠনের সভাপতি ও দপ্তর সম্পাদক এর উপরে দ্বিতীয় দফায় হামলা চালায় মনসুর আলী ও তার সন্ত্রাসী বাহিনী৷ এ ঘটনার পরে আবরো ঠাকুরগাঁও নরেশ চৌহান সড়কে সময় টেলিভিশনের অফিসে সন্ত্রাসী হামলা চালায় মনসুর আলী, লুথফর রহমান মিঠু, নাহিদ রেজা, শাকিল আহম্মেদ, হিমেল তালুকদার, জুয়েল ইসলাম শান্ত ও মোঃ ইসলামসহ অনেকে৷ এসময় সন্ত্রাসীরা সময় টিভির অফিস ভাংচুর করে এবং ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি এমদাদুল ইসলাম ভূট্টো, সাধারণ সম্পাদক আবদুল লতিফ লিটু ও দপ্তর সম্পাদক জয় মহন্ত অলক কে আবারো সন্ত্রাসী কায়দায় মারপিট করে সংগঠনের সভাপতি এমদাদুল ইসলাম ভূট্টো কে তুলে নিয়ে যায় অজ্ঞাত স্থানে। পরে সাংবাদিকরা তাকেসহ অন্যান্যদের উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। ঘটনাটির পরে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি৷ জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা, ঠাকুরগাও জেলা শাখা এবং রোড প্রেসক্লাব তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানায়৷ এ ঘটনায় পরে ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি নেতৃবৃন্দ পৃথক ৩ টি মামলা দায়ের করেছেন। আর রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতৃবৃন্দের নামে একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করে মনসুর আলী। যে মামলায় জামিনে আছেন ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটির নেতৃবৃন্দ। মোঃসোহেল রানাঠাকুরগাঁও।০৭.০৪.২০২১

এই বিভাগের আরও খবর
কপিরাইট ©২০০০-২০২০, WsbNews24.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY ServerNeed.Com
themesbazarwsbnews25