শিরোনাম:
হাটহাজারীতে ইউপি নির্বাচনে নৌকার ৮ জন ও স্বতন্ত্র ৫ জন বিজয়ী চাটমোহরে ইউপি নির্বাচনে আ’লীগের ৭, স্বতন্ত্র ৪ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হাতীবান্ধার সানিয়াজানে রাস্তা নির্মাণে নবতরী বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন’র আর্থিক সহায়তা প্রদান ঝালকাঠিতে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ বিক্রয়ের অভিযোগ ঝালকাঠিতে ১০০ টাকায় ১৪ তরুণ-তরুণীর পুলিশে চাকরীমো. কুতুবপুর ইউপি নির্বাচনে সেলিম রেজা বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত। সুন্দরগঞ্জে ভোটকেন্দ্রে হামলা, ব্যালট পেপার ছিনতাই সিরাজগঞ্জে ভোটের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে আহত ২ সাংবাদিক গোটা দেশের মানুষ জান মালের নিরাপত্তা সহ সুখে শান্তিতে বসবাস করতেছেন-বজলুল হক হারুন এমপি বোয়ালমারীতে মাদ্রাসার ছাত্রদের উপর হামলা, থানায় অভিযোগ

সাবিনার সঙ্গে যাচ্ছেন জাপানে জন্ম নেয়া বাংলাদেশের ফুটবলার মাতসুশিমা সুমাইয়া

জহিরুল ইসলাম মিলন, ক্রীড়া প্রতিবেদকঃ-
  • আপডেটের সময় : সোমবার, ৮ নভেম্বর, ২০২১

সাবিনার সঙ্গে যাচ্ছেন জাপানে জন্ম নেয়া বাংলাদেশের ফুটবলার মাতসুশিমা সুমাইয়া

চতুর্থবারের মতো মালদ্বীপের ঘরোয়া ফুটবল খেলতে বুধবার মালে যাচ্ছেন জাতীয় নারী দলের অধিনায়ক সাবিনা খাতুন। তবে তিনি একা নন, একই ক্লাবে খেলতে সাবিনার সঙ্গে যাচ্ছেন জাপানে জন্ম নেয়া বাংলাদেশের ফুটবলার মাতসুশিমা সুমাইয়া।

দেশের ঘরোয়া ফুটবলে বসুন্ধরা কিংসের এ দুই ফুটবলার মালদ্বীপে খেলবেন ধিবেহি সিফাইং ক্লাবে। এটি মূলত মালদ্বীপ ডিফেন্স ফোর্সের ক্লাব। এই ক্লাবেই আগে দুইবার খেলে এসেছেন সাবিনা।

জাপানি মাতসুশিমা সুমাইয়ার বাবা বাংলাদেশি এবং মা জাপানি। দুই বছর বয়স থেকেই সুমাইয়া থাকেন বাংলাদেশে। শৈশব থেকেই ফুটবলের প্রতি দারুণ টানা সুমাইয়ার। জাতীয় দলে খেলার স্বপ্ন তার। পরপর দুই বছর তিনি নারী ফুটবল লিগে ছিলেন বসুন্ধরা কিংসে। গত মৌসুমে দুটি গোলও করেছেন সুমাইয়া।

মালদ্বীপের ঘরোয়া ফুটবলে খেলার সুযোগ পেয়ে দারুণ রোমাঞ্চিত সুমাইয়া। জাগো নিউজকে তিনি বলেছেন, ‘আমি খুবই খুশি বিদেশের ঘরোয়া ফুটবলে খেলার সুযোগ পেয়ে। ঐ ক্লাব থেকে আমার এজেন্টের কাছে প্রস্তাব দেয়া হয়েছিল। আমি উইমেন ফুটসাল ফিয়েস্তায় খেলার জন্য ক্লাবটির সঙ্গে চুক্তি করেছি। বুধবার দুপুরে ফ্লাইট। প্রথম ম্যাচ ২১ নভেম্বর। মোট ৬ টি ম্যাচ খেলবো।

চুক্তি কতদিনের এবং পারিশ্রমিক কেমন? সুমাইয়া বলেছেন, ‘এই টুর্নামেন্টের জন্যই চুক্তি। আর পারিশ্রমিক? সেটা বলছি না। আমি খেলার সুযোগটাকেই বেশি গুরুত্ব দিয়েছি।’

সাবিনা খাতুন ২০১৬ সালে এই ক্লাবে চার ম্যাচ খেলে ৩১ গোল করে গোল্ডেন বুট জিতেছিলেন। টুর্নামেন্টে তার ক্লাব রানার্সআপ হওয়ার পেছনে বিশাল ভূমিকা ছিল বাংলাদেশ অধিনায়কের।

সাবিনা ২০১৫ সালে প্রথম বাংলাদেশি নারী ফুটবলার হিসেবে মালদ্বীপে খেলতে গিয়েছিলেন। মালদ্বীপ পুলিশ ক্লাবের জার্সিতে ৫ ম্যাচে ৩৭ গোল করে জিতেছিলেন গোল্ডেট বুট। প্রথমবারও নিজ দলকে রানার্সআপ করতে বড় ভূমিকা ছিল সাবিনার

এই বিভাগের আরও খবর
কপিরাইট ©২০০০-২০২০, WsbNews24.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY ServerNeed.Com
themesbazarwsbnews25
x