শিরোনাম:
ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাদের হাতে নৌকার প্রতীক দিবে;ইউপি নির্বাচনে স্বামী-স্ত্রীর মনোমালিন্যে গৃহবধূ গলায় ফাঁস নিয়ে আত্যহত্যা বাংলাদেশ মাধ্যমিক বিদ্যালয় গ্রন্থাগার সমিতির আত্মপ্রকাশ সৈয়দপুরে নির্বাচন উপলক্ষে ইভিএম ভোট প্রদান পদ্ধতি ও ‘মক ভোটিং’ অনুষ্ঠিত গাংনীর গাড়াবাড়ীয়া বসত বাড়ীতে আগুনঃ ফেনী-পশুরামের মেয়র ও কাউন্সিলররা শপথ নিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব ম্যারাথন ঢাকা ২০২১ উদ্বোধন করেন পংকজ নাথ এমপি মেহেরপুরে মুক্তিযোদ্ধার তালিকা থেকে নাম বাদ যাওয়ায় শোকে মৃত্যু ডিমলায় আওয়ামীলীগের কর্মী সভা সৈয়দপুর পৌরসভা নির্বাচন উপলক্ষে প্রিজাইডিং অফিসারগণের সাথে মত বিনিময় সভা

ফ্রিল্যান্সারদের জন্য স্বীকৃতি ও সনদ দেবেন প্রধানমন্ত্রী

আয়শা সিদ্দিকা, বিশেষ প্রতিনিধি
  • আপডেটের সময় : শনিবার, ১৬ জানুয়ারী, ২০২১
ফ্রিল্যান্সারদের জন্য স্বীকৃতি ও সনদ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জাতির পিতার আদর্শে তরুণদের গড়ে তুলে পরবর্তী প্রজন্মের জন্য সমৃদ্ধ দেশ বিনির্মাণে কাজ করছে তার সরকার। এ জন্য প্রাতিষ্ঠানিক প্রথাগত শিক্ষাব্যবস্থার পাশাপাশি তরুণ ও যুব সম্প্রদায়কে কারিগরি বিষয়েও জ্ঞান অর্জনের তাগিদ দিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, শুধু একটা ডিগ্রি নিয়ে কোনো চাকরি জোটানো একমাত্র লক্ষ্য রাখা যাবে না। প্রয়োজনে নিজের মতো করে উদ্যোক্তা হতে হবে। যাতে করে নিজের কর্মসংস্থানের পাশাপাশি অন্যকেও কর্মক্ষম করা সম্ভব হয়।

এ সময়, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে উঠে আসে, দেশের ফ্রিল্যান্সারদের আয়-উপার্জন ও সামাজিক স্বীকৃতির বিষয়টি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, যুব সম্প্রদায়ের মেধা-মনন কাজে লাগাতে চায় সরকার। সমগ্র বাংলাদেশে ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট পৌঁছে যাওয়ার উদাহরণ তুলে ধরে তিনি বলেন, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টারগুলোতেও এখন কর্মসংস্থানের বিভিন্ন উদ্যোগ নেয়ার সুযোগ তৈরি হয়েছে। ফ্রিল্যান্সারদের অসুবিধার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যেহেতু এখানে কোনো রেজিস্ট্রেশন-স্বীকৃতি-সনদ কিছুই নিতে হচ্ছে না বা নেয়ার কোনো পথ নেই। তাই অনেক সময়ই সমাজে অনেকেই বুঝতে পারছেন না বিষয়টা সম্পর্কে।

বিশ্বের অন্যান্য দেশের সঙ্গে বাংলাদেশের সময়ের যে পার্থক্য সেটাকে কাজ লাগিয়েও অনলাইনে অনেকেই কাজ করে অর্থ উপার্জন করতে পারে এবং অনেকেই সেটি করছেন বলে জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

তিনি বলেন, শুধু কাজ করলেই হয় না তার একটা স্বীকৃতিরও প্রয়োজন হয়। অনেক সময়ই আমার কাছে অভিযোগ আসে, বিয়ে ঠিক করতে গেলে জিজ্ঞেস করে ফ্রিল্যান্সিং কী! অনেকেই বিষয়টি বোঝেন না।’ ‘আবার অনেক ক্ষেত্রে নিজেরা ফ্রিল্যান্সিং করে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। তারা যখন তাদের ছেলেমেয়েদের স্কুলে ভর্তি করতে যাচ্ছে, তখন তাদের ভর্তি নেয়া হয় না বাবা-মায়ের আয়ের স্থায়ী উৎস না থাকার অজুহাতে। শুধু তাই নয়, ফ্রিল্যান্সাররা কী কাজ করেন, সেটির স্বীকৃতি না থাকায় সমস্যায় পড়ছে অনেকেই।

ফ্রিল্যান্সিংয়ে সম্পৃক্ত তরুণদের স্বীকৃতি দেয়ার বিষয়টি চূড়ান্ত করতে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের সঙ্গে আলোচনার কথা উল্লেখ করে সরকার প্রধান বলেন, আইসিটি বিভাগ ও যুব-ক্রীড়া মন্ত্রণালয় থেকে সনদ ও স্বীকৃতির ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। সরকার প্রধান বলেন, ‘এই সমস্যাগুলো নিয়ে আমাদের কাছে অভিযোগ এসেছে। তাই দেশের ফ্রিল্যান্সারদের স্বীকৃতি ও সনদ দিতে কী করা যায় সেই ব্যবস্থা সরকারের পক্ষ থেকে নেয়া হবে।

এই বিভাগের আরও খবর
কপিরাইট ©২০০০-২০২০, WsbNews24.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY ServerNeed.Com
themesbazarwsbnews25