গাংনীতে পরকীয়া করতে গিয়ে স্কুল ছাত্রের সাথে গৃহবধু আটক।

হাসানুজ্জামান,মেহেরপুর ।
  • আপডেটের সময় : মঙ্গলবার, ৬ এপ্রিল, ২০২১
পরকীয়া করতে গিয়ে স্কুল ছাত্রের সাথে গৃহবধু আটক।

মেহেরপুরের গাংনীতে পরকীয়া করতে গিয়ে এলাকাবাসীর হাতে ধরা খেয়েছে ভাবি-দেবর। সোমবার(০৫এপ্রিল) দিবাগত মধ্যরাতে উপজেলার করমদী মধ্যে পাড়ায় এঘটনা ঘটে। এলাকাবাসীর হাতে আটককৃতরা হলো,উপজেলার করমদি বাগান পাড়ার প্রবাসী হাসান আলীর ছেলে বিদ্যুৎ হোসেন(১৬) ও এলাকার মধ্যপাড়ার লালন হোসেনের এক সন্তানের জননী (১৮) ও উপজেলার রামদেবপুর ভিটাপাড়া বাবলুর মেয়ে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, বিদ্যুৎ ও লালনের স্ত্রী লালনের বাড়িতে পরকীয়া করছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে এলাকাবাসীরা দুজনকে আটক করে। কিছু দালালের জন্য এলাকাবাসীরা বাধ্য হয়ে ৯৯৯ ফোন দিয়ে গাংনী থানা পুলিশের হাতে তুলে দেয়।নাম প্রকাশ করা যাবে না এমন শর্তে একজন জানান, লালনের স্ত্রী দীর্ঘদিন ধরে অষ্টম শ্রেণী পড়ুয়া বিদ্যুৎ হোসেনের সাথে পরকীয়া করে আসছে। লালন গত একমাস চাকরির সুবাদে বাড়ির বাইরে থাকার কারণে বিদ্যুৎ হোসেনকে ডেকে নেয় তার স্ত্রী। এ সময় আমরা তাকে আটক করে, ঘরের দরজা খুলতে বলি কিন্তু দরজা খুলতে দেরি করাই আমাদের সন্দেহ হয়। দরজা খুলে বিদ্যুৎ কে লালনের স্ত্রীর খাটের নিচ থেকে আমরা আটক করি।

এ বিষয়ে বিদ্যুতের কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, লালনের স্ত্রী সম্পর্কে আমার পাড়া-প্রতিবেশী ভাবি হন। গত ৫ মাস ধরে আমার সাথে সম্পর্ক,আমি রাতে তার সাথে গল্প করার জন্য গিয়েছিলাম।এ বিষয়ে লালনের স্ত্রীর কাছে জানতে চাওয়া হলে তিনি জানান, আমাদের দুজনের বয়স একই হওয়ায় দু’জন দু’জনকে পছন্দ করি।তেঁতুলবাড়িয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর আলম জানান, আমি পরিষদে আসার সময় শুনলাম বিদ্যুৎ ও লালনের স্ত্রী অসামাজিক কাজ করতে গিয়ে এলাকাবাসীর হাতে আটক হয়েছে।

এলাকাবাসীরা তাকে গাংনী থানা পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে।গাংনী থানার ওসি মোঃ বজলুর রহমান জানান, গত রাতে উপজেলার করমদি এলাকা থেকে দুজনকে আটক করে এনেছে গাংনী থানা পুলিশ। দুই পরিবারের সাথে বসে মীমাংসার চেষ্টা চলছে।

এই বিভাগের আরও খবর
কপিরাইট ©২০০০-২০২০, WsbNews24.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY ServerNeed.Com
themesbazarwsbnews25