শিরোনাম:
হাটহাজারীতে ইউপি নির্বাচনে নৌকার ৮ জন ও স্বতন্ত্র ৫ জন বিজয়ী চাটমোহরে ইউপি নির্বাচনে আ’লীগের ৭, স্বতন্ত্র ৪ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হাতীবান্ধার সানিয়াজানে রাস্তা নির্মাণে নবতরী বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন’র আর্থিক সহায়তা প্রদান ঝালকাঠিতে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে সরকারি গাছ বিক্রয়ের অভিযোগ ঝালকাঠিতে ১০০ টাকায় ১৪ তরুণ-তরুণীর পুলিশে চাকরীমো. কুতুবপুর ইউপি নির্বাচনে সেলিম রেজা বিপুল ভোটে চেয়ারম্যান নির্বাচিত। সুন্দরগঞ্জে ভোটকেন্দ্রে হামলা, ব্যালট পেপার ছিনতাই সিরাজগঞ্জে ভোটের তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে আহত ২ সাংবাদিক গোটা দেশের মানুষ জান মালের নিরাপত্তা সহ সুখে শান্তিতে বসবাস করতেছেন-বজলুল হক হারুন এমপি বোয়ালমারীতে মাদ্রাসার ছাত্রদের উপর হামলা, থানায় অভিযোগ

জেলা প্রশাসক বরাবর লিখত অভিযোগ কাজী সিরাজুল ইসলাম মহিলা কলেজে ফি বাবদ অতিরিক্ত টাকা আদায়

এসএম রুবেল বোয়ালমারী ফরিদপুর প্রতিনিধি :
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ২১ অক্টোবর, ২০২১

ফরিদপুরের বোয়ালমারী কাজী সিরাজুল ইসলাম মহিলা কলেজে বোর্ড ফি বাবদ অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার ওই কলেজের অনার্স তৃতীয় বর্ষের সমাজকর্ম বিভাগের শিক্ষার্থী সাদিয়া ইসলামের বাবা মোঃ সৈয়দ আলী অতিরিক্ত টাকা নেয়ার বিষয়ে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা প্রশাসন বরাবর লিখত অভিযোগ দায়ের করেন।


লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, অনার্স তৃতীয় বর্ষের বোর্ড পরীক্ষার ফরমপূরণ বাবাদ প্রতিষ্ঠানটি গত ৪ অক্টোবর ২১ তারিখে তার মেয়ের কাছ থেকে বোর্ড ফি সহ বিভিন্ন খাত দেখিয়ে ৩৭৫০ টাকা আদায় করেন। যদিও সরকার নির্ধারিত বোর্ড ফি ২১০০ টাকা।


এর আগে করোনাকালিন সময় অভ্যন্তরীন পরীক্ষার নামে অ্যাসাইমেন্ট জমা নেওয়ার সময় তার মেয়ের কাছ থেকে ১ হাজার টাকা আদায় করা হয়। একই শিক্ষাবর্ষের (১৭-১৮) ভর্তি ফি-২৭২০ টাকা, বেতন ৩৬০০ টাকাসহ অন্যান্য সমস্ত পাওনাদি নিয়মিত পরিশোধ করার পরও দফায় দফায় কলেজটির দাবীকৃত অতিরিক্ত অর্থ পরিশোধ করতে গিয়ে একজন দরিদ্র অভিভাবক হিসেবে তাকে চরম কষ্ট ও দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।

ওই অভিভাবক আরও বলেন, অতিরিক্ত টাকা নেয়ার বিষয়ে কলেজের ক্লার্ক কামরুল ইসলামের নিকট জানতে চাইলে তিনি হুমকি ধামকি দিয়ে বলেন, মেয়েকে কলেজে পড়াবা আবার টাকা দিতে বাঁধা বিপত্তি সৃষ্টি করবা। টাকা দিলে দিবা না দিলে প্রধান অধ্যক্ষকে বলে মেয়েকে টিসি দিয়ে কলেজে আসা বন্ধ করে দিব।

এবিষয়ে অফিস সহকারী কামরুল বলেন, আমার সাথে সৈয়দ আলী নামের কোন অভিভাবকের সাথে কোন ব্যাপারে কথা হয়নি। এটা আমাকে ফাঁসানোর জন্য মিথ্যা অপবাদ দিয়েছে।

কাজী সিরাজুল ইসলাম মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ ফরিদ আহমেদ বলেন, বিভিন্ন খাতে শিক্ষার্থীদের নিকট থেকে ৩৭৫০ টাকা ফি আদায় করা হয়েছে। এটা কোন অবৈধ ভাবে আদায় করা হয়নি। কলেজের নিয়ম অনুযায়ী ফি নেয়া হয়েছে। আর রশিদের মাধ্যমে এ টাকা নেয়া।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: রেজাউল করিম বলেন, লিখিত অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এই বিভাগের আরও খবর
কপিরাইট ©২০০০-২০২০, WsbNews24.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY ServerNeed.Com
themesbazarwsbnews25
x