কবিতা: আমাদের গ্রাম -মুনতাসীর আহমেদ মিলন

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • আপডেটের সময় : সোমবার, ৭ জুন, ২০২১

এই-যে স্নিগ্ধ আকাশ-বাতাস চির অম্লান হাসি,
এরই মাঝে কিন্তু আমি, আমার গ্রামকে ভালবাসি।
এই-যে এতো কোলাহল আর নদীর কলকলিয়ে চলা,
এই জন্যই গ্রামকে ভালবাসি হয়নি কখনো বলা।

এই-যে শালিক ,ময়ানা উড়ে ডাকে কবুতর।
এগুলোই কিন্তু রাত কাটিয়ে জাগিয়ে দেয় ভোর।
এই -যে গায়ের সস্তা শাড়ি, অকৃত্রিম মুখের হাসি।
কষ্ট হলেও বুক মিলিয়ে, আমি গ্রামকে ভালবাসি।

ধানের গন্ধে মন আনন্দে পোকার গন্ধে মাতওয়ারা।
বৃষ্টি বিলাস কুমড়ো ফটাস আতস বাজির ঘুম কারা।
এই-যে খাওয়ার অল্প ধরণ গড়ন পাতলা চিকন সব।
সারা বেলা খেলাধুলা আবার পড়ার দলেও মোরা সব।

বর্ষা বাদল ঝুম ঝুমিয়ে মাঠ-ক্ষেতে যায় পানি ভরে,
নানান রকম জাল নিয়ে যাই মাছ আনি সব থলে ভরে।
গ্রীষ্মের রোদে আমের তলায় ফের আম কুড়িয়ে আনি,
মাঠের রোদে কাজ করি সব তৃষ্ণাতে খাই পানি।

নবান্ন বা পিঠাপুলি,পান্তা ভাতেও আমরা।
বসন্তে যাই ফুল তুলিতে শিশু থেকে দামড়া।
ঘোড়ার দৌড় আর কানা মাছি গোল্লাছুটে মাতি সব,
লাটিম,ক্রিকেট, ফুটবলেতেও একই সাথে কলরব।

এতক্ষণ যার তুলনা দিলাম সেখানে আসতো আগে জোয়ার,এ কারণেই গ্রামের নামটি হয়েছে আমাদের গাংজোয়ার।
তুলনাহীন অনেক কিছু দখল করে গ্রাম আমার,
সকাল,সন্ধ্যা, বিকেল কাটাই ভোরে উঠে দৌড় আবার।

নিউজটি শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও খবর
কপিরাইট ©২০০০-২০২০, WsbNews24.com এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
Desing & Developed BY ServerNeed.Com
themesbazarwsbnews25
x